বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২০
Home অপরাধ ও আইন 'আমি তাকে মেরে ফেলিনি। মহিলা আগেই মরে গিয়েছিল’

‘আমি তাকে মেরে ফেলিনি। মহিলা আগেই মরে গিয়েছিল’

- Advertisement -

যোগাযোগ ডেস্কঃ

রাজধানীর বাড্ডা প্রাইমারি স্কুলের সামনে ছেলে ধরা সন্দেহে রেনু হত্যা মামলায় দোষ স্বীকার করেছেন ঘটনার মাস্টার মাইন্ড ইব্রাহিম ওরফে হৃদয় হোসেন মোল্লা।

আদালত জানতে চাইলে হৃদয় বলেন, ‘আমি সবজি বিক্রি শেষে স্কুলের সামনে দাঁড়িয়ে ছিলাম। এক মহিলা বলেছে, সে (রেনু) গলাকাটা (ছেলে ধরা)। তাই অনেকেই তাকে (রেনুকে) মারে। মারধরের একপর্যায়ে ওই মহিলাকে (রেনু) স্কুলের একটি রুমে আটকে রাখা হয়। সেখান থেকে ছিনিয়ে নিয়ে অনেকেই তাকে আবারও মারে।

মহিউদ্দিন ও কালা জাহাঙ্গীর মহিলাকে (রেনু) মারতে মারতে আমার কাছে নিয়ে আসে। তারা (মহিউদ্দিন ও কালা জাহাঙ্গীর) বলে, তুইও মার। তখনই ওই মহিলার জান ছিল না (মৃত ছিল)। তাদের কথায় আমি শুধু ওই মহিলার লাশের ওপর আঘাত করেছি। আমি তাকে মেরে ফেলিনি। মহিলা আগেই মরে গিয়েছিল।’ বু

ধবার ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসীমের আদালতে আসামি নিজেই এসব কথা বলে। শুনানি শেষে আদালত আসামির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শুনানির সময় নিহত তসলিমা বেগম রেনুর ১১ বছরের ছেলে তাহসিন আল মাহির আদালতে উপস্থিত ছিল।

শুনানির প্রায় পুরো সময় মাহির নির্বাক দৃষ্টিতে বিচারকের দিকে তাকিয়ে ছিল। মাহির তার মায়ের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করে।

এদিন আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বাড্ডা থানার ইন্সপেক্টর আবদুর রাজ্জাক।

শুনানিতে সংশ্লিষ্ট থানার জিআরও লিয়াকত আলী বলেন, মামলায় ভিকটিমকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। সারা দেশবাসী তা দেখেছেন। এ আসামি ঘটনার মাস্টার মাইন্ড। জনগণের সহায়তায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিভিন্ন ভিডিও ফুটেজেও তাকে মারতে দেখা গেছে।

মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তার সর্বোচ্চ রিমান্ড প্রার্থনা করছি। শুনানির এ পর্যায়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বিচারককে ভিডিওর কয়েকটি স্থির চিত্র দেখান। যেখানে আসামি হৃদয় উপস্থিত ছিল।

মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী সাইদুল ইসলাম পলক কান্নাজড়িত কণ্ঠে আদালতে বলেন, ভিকটিমের ৪ বছরের শিশু সন্তান আজও তার মায়ের জন্য অপেক্ষা করছে। এটা নিছক কোনো গুজব নয়।

এটা কোনো সংঘবদ্ধ গ্যাংয়ের কাজ। যারা সারা দেশে এ গুজব ছড়িয়ে দিচ্ছে। পদ্মা সেতু কিংবা অন্য কোনো সেতু বানাতে মানুষের মাথা লাগে না। সে (আসামি) নর্দমার কীট ও মামলার এক নম্বর আসামি। আসামি নিজের চুল কেটে ন্যাড়া হয়ে ছদ্মবেশ ধারণ করেছিল। আসামির সর্বোচ্চ রিমান্ড প্রার্থনা করছি।

মামলার বাদী নাসির উদ্দিন আদালতকে বলেন, যখন মামলার ভিকটিমের ধুকু ধুকু জান ছিল, তখন এ আসামি (হৃদয়) তাকে মেরে মৃত্যু নিশ্চিত করে। হাজার মারের পর যখন ভিকটিমের নিথর দেহ আর নড়ছিল না, তখন মার বন্ধ করে। ভিকটিমের আঙুল তিল পরিমাণ নড়া অবস্থাতেও মার বন্ধ করেনি হৃদয়।

এরপর আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী না থাকায় বিচারক আসামির কাছে ঘটনা শুনতে চান। বিচারক প্রশ্ন করেন- আপনি (হৃদয়) ওই মহিলাকে (রেনু) মারলেন কেন?

জবাবে হৃদয় উপরোল্লিখিত কথা বলে। হদয় আরও বলে, ‘আমার বাবা-মা নেই। আমি এতিম। আমাকে মাফ করে দেন।’ উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামির রিমান্ডের ওই আদেশ দেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের ভুলতা থেকে হৃদয়কে গ্রেফতার করা হয়। এ নিয়ে মামলায় সাত আসামিকে গ্রেফতার দেখানো হল। আসামিদের মধ্যে একজন আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। বাকি আসামিরা রিমান্ডে আছে।

আসামিদের মধ্যে মঙ্গলবার মো. কামাল হোসেন ও আবুল কালাম আজাদের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরও আগে সোমবার আসামি মো. শাহীন, মো. বাচ্চু মিয়া ও মো. বাপ্পির ৪ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর হয়। ওই দিন মামলার অপর আসামি জাফর হোসেন দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। জবানবন্দি রেকর্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

২০ জুলাই সকালে উত্তর বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেনু নিহত হন।

এ ঘটনায় রেনুর বোনের ছেলে নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে রাজধানীর বাড্ডা থানায় হত্যা মামলাটি করেন। নিহত রেনুর ১১ বছরের এক ছেলে ও ৪ বছরের এক মেয়ে আছে।

সর্বশেষ

ইসলাম নিয়ে ম্যাক্রঁ’র বিতর্কিত মন্তব্যে ভারতের সমর্থন

ফ্রান্সে সম্প্রতি ক্লাসরুমে মহানবী (সাঃ)’র কার্টুন দেখানোর সূত্রে একজন স্কুল শিক্ষকের শিরচ্ছেদের ঘটনার পর ইসলাম ধর্ম নিয়ে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রঁর সাম্প্রতিক কিছু মন্তব্যের বিরুদ্ধে...

শিগগিরই ঢাকায় সফরে আসছেন এরদোয়ান

নিজেদের দূতাবাস উদ্বোধন করতে শিগগিরই ঢাকায় আসছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পরিস্থিতির উন্নতি হলে দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বাংলাদেশে আসার ব্যাপারে...

পদ্যতাগের দাবি উপেক্ষা করে পদে থাকবেন থাই প্রধানমন্ত্রী

থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রাইয়ুথ চান-ওচা পদত্যাগের দাবি নাকচ করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ হলেও তিনি ক্ষমতা না ছেড়ে বরং প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন...

প্রতারণা মামলায় গ্রেপ্তারের পর জামিন পেল দেবাশীষ বিশ্বাস

প্রতারণা অভিযোগে বুধবার (২৮ অক্টোবর) গ্রেপ্তার হন চলচ্চিত্র পরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাস। তবে এর কিছুক্ষণ পরে শর্ত সাপেক্ষে জামিন পেয়েছেন এই নির্মাতা। জানা গেছে, ২০১৯ সালের...