বুধবার, নভেম্বর ২৫, ২০২০
Home আন্তর্জাতিক জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিও ভবনে অগ্নিসংযোগ, নিহত ২৩

জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিও ভবনে অগ্নিসংযোগ, নিহত ২৩

- Advertisement -

যোগাযোগ ডেস্কঃ

জাপানের কিয়োটোতে একটি অ্যানিমেশন স্টুডিওতে সন্দেহভাজন অগ্নিসংযোগের ঘটনায় অন্তত ২৩ জন মারা গেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম একজন পুলিশের বরাত দিয়ে জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে কিয়োটো অ্যানিমেশন কোম্পানির স্টুডিওতে এক ব্যক্তি গোপনে প্রবেশ করে কোনো অজানা এক ধরণের তরল পদার্থ স্প্রে করে। এই ঘটনায় এখনো অন্তত ৩০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে এখনো শনাক্ত করা যায়নি, তবে তাকে আটক করা হয়েছে এবং তার শরীরে চোট থাকায় হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিন তলা ভবনে আগুন ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়। কিয়োটোর এক পুলিশ সদস্য জানায়, এক ব্যক্তি ‘তরল পদার্থ স্প্রে করে সেখানে আগুন জ্বালিয়ে দেয়।’ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে বলা হচ্ছে যে, ঘটনাস্থলে পুলিশ ছুরিও পেয়েছে। তবে সন্দেহভাজন ব্যক্তির সাথে প্রতিষ্ঠানটির সম্পর্ক কী – সেবিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি।

ঘটনার বর্ণনা দেয়ার সময় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুরুতে বিস্ফোরণের শব্দের সাথে অগ্নিস্ফুলিঙ্গ দেখা যায় এবং পুরো বাড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

দমকল বাহিনীর এক মুখপাত্র জানান, ‘তিনতলা ভবনের ওপর থেকে আরো বেশ কয়েকজন ভুক্তভোগীকে বের করে আনার চেষ্টা করছি আমরা, যাদের মধ্যে অনেকে হয়তো নিজেরা নড়াচড়াও করতে পারেন না।’ দমকল কর্মকর্তারা বলছেন, অন্তত ২৩ জনকে ‘কার্ডিও পালমোনারি অ্যারেস্ট’ হওয়া অবস্থায় পাওয়া গেছে – জাপানে যেই পরিভাষা প্রায়ই ব্যবহার করা হয়, এমন ভুক্তভোগীদের জন্য যারা মারা গিয়েছে কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের মৃত্যু নথিভুক্ত হয়নি।

একজন দমকল কর্মকর্তা জানায় অন্তত ১০ জন ভুক্তভোগীকে ভবনের সিঁড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়। তাদের ভাষ্যমতে আগুন লাগার সময় ভবনে প্রায় ৭০ জন ছিলেন। বিভিন্ন খবর থেকে জানা যাচ্ছে, হাসপাতালে প্রায় ৩৬ জন চিকিৎসা নিচ্ছে, যাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর।

স্থানীয়ভাবে পাওয়া খবর থেকে জানা যাচ্ছে যে সন্দেহভাজন ব্যক্তি ওই সংস্থার সাবেক কর্মচারী ছিলেন না এবং স্টুডিওর সাথে তার সরাসরি কোনো সম্পর্কও ছিল না। জাপানি গণমাধ্যমগুলো দাবি করছে, আগুন ছড়িয়ে পরার পর সন্দেহভাজন ব্যক্তি সেখানকার একটি স্টেশনের দিকে দৌড়ে গিয়ে সেখানে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। ৫৯ বছর বয়সী এক নারী গণমাধ্যমকে জানায় ‘চুল ঝলসানো অবস্থায় এক ব্যক্তি মাটিতে পড়েছিলেন এবং আশেপাশে রক্তাক্ত পদচিহ্ন ছিল’।

উল্লেখ্য, কিয়োটো অ্যানিমেশন, যা কিওআনি হিসেবও পরিচিত, ১৯৮১ সালে নির্মিত হয়। জাপানের বেশকিছু জনপ্রিয় অ্যানিমেশন শো নির্মাণ করেছে এই স্টুডিওটি।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পর সামাজিক মাধ্যমে অনেকেই শোক প্রকাশ করেছেন।

সূত্র : বিবিসি

সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় ট্রলির ধাক্কায় বাইক আরোহী তরুণ নিহত

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় ট্রলির ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী এক তরুণ নিহত হয়েছেন। নিহত মামুন মিয়া (২২) উপজেলার মাজদিয়া মুন্সীগঞ্জ এলাকার মুসাব মুন্সির ছেলে। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর)...

দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল সাড়ে ৪ লাখ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে আরো ৩২ জনের। এ নিয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৬ হাজার ৪৪৮ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায়...

ডায়াবেটিস রোগীরাও নির্দ্বিধায় খেতে পারেন আলু

‘আলু’ দুই অক্ষরের এই ছোটো গোলগাল সবজির জনপ্রিয়তা রয়েছে সর্বএই। বিশেষ করে বাঙালীদের কাছে আলুর প্রতি প্রেম একটু অন্যরকমই। সবজির ঝুড়িতে হোক বা তরকারী,...

পঁচিশ বছর পরে আবার একসঙ্গে

তাঁর কেরিয়ারের দ্বিতীয় ছবি ‘রাজা’ ছিল মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গে। নব্বইয়ের দশকের সেই ছবির সাফল্য অভিনেতা সঞ্জয় কপূরের জীবনে একটি মাইলফলক। পরবর্তী কালে ছবি-টেলিভিশন বা...