সোমবার, মার্চ ১, ২০২১
Home others ভিডিও সহযোগী রেফারির আদ্যোপান্ত

ভিডিও সহযোগী রেফারির আদ্যোপান্ত

বিশ্বকাপ শুরু হয়ে গেছে তা প্রায় কদিন হয়ে গেলো। সারা বিশ্ব তাকিয়ে আছে মেসি রোনালডো আর রাশিয়ার দিকে। অন্য দিকে ফিফা ঘটিয়ে ফেলেছে প্রযুক্তির বিপ্লব। অনেক নয়া নয়া প্রযুক্তির বিস্ময় যুক্ত হয়েছে এবারের বিশ্বকাপে। তা যেমন খেলাকে করছে অনেক ত্রুটি মুক্ত তেমন কপাল পোড়াচ্ছে অনেক সমর্থক এবং দলের। যে বিষয় টি নিয়ে সবচেয়ে বেশি কথা হচ্ছে তা হলো ভি এ আর (VAR) । আজ থাকছে ভি এ আর নিয়ে বিস্তারিত।

(Video Assistant Referee) ভিডিও সহযোগী রেফারি বা ভি এ আর। এবারের বিশ্বকাপের আলোচিত সমলোচিত প্রযুক্তির মাঝে একটি। বিষয় টা আসলে কী? আপনাদের মাঝে যারা ক্রিকেট খেলা দেখেন সেখানে একটা প্রযুক্তি ব্যাবহার হয় যার নাম থার্ড আম্পায়ার বা টিভি আম্পায়ার। যিনি কোন বিতর্কিত সিদ্ধান্ত টিভিতে রিপ্লে দেখে ঠিক না ভুল তা বিচার করে লাল বা সবুজ আলো জ্বালিয়ে দেন। লাল আলো মানে আউট আর সবুজ মানে নট আউট। এখন আধুনিক এল ই ডি ডিসপ্লের বদৌলতে অনেক সুন্দর এনিমেশনেও দেখা যায় এই প্রযুক্তির ব্যাবহার। অনেকটা এই প্রযুক্তির উপর ভিত্তি করেই এসেছে এই ভি এ আর।

আগেকার দিনে বা কদিন আগেও ফুটবলের খেলা পরিচালনা করতেন মূলত চার জন মানুষ। মূল রেফারি, দুইজন সহকারী রেফারি আর একজন ম্যাচ অফিশিয়াল। আর এখন যুক্ত হয়েছে ভি এ আর। ভি এ আর মূলত তিন সদস্যের একটি দল যাদের মূল কাজ হচ্ছে মূল রেফারিকে তার সিদ্ধান্ত আরো সঠিক বা পোক্ত করতে সাহায্য করা। এই তিন সদস্যের দলে থাকবেন প্রধান ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (যিনি অবশ্যই হবেন একজন বর্তমান কিংবা সাবেক ফিফা রেফারি), একজন সহকারী ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি এবং একজন রিপ্লে অপারেটর। মাঠের বিভিন্ন স্থানে লাগানো ক্যামেরার ভিডিও থেকে তারা নিবিড় পর্যবেক্ষন করবেন খেলার পুরো পরিস্থিতি।

ভি এ আর মূলত ব্যাবহৃত হবে চার ধরনের সিদ্ধান্তের জন্য। প্রথমত বল গোল লাইন ক্রস করেছে কি না বা আদতেই এখানে কোন গোল হয়েছে কি না তা জানার জন্য। দ্বিতীয়ত পেনাল্টির সিদ্ধান্ত নিতে। তৃতীয়ত লাল কার্ড দেখানোর সিদ্ধান্ত নিতে এবং চতুর্থত ভুল বা নির্দোষ খেলোয়ার কে কার্ড দেখিয়ে দিলে। ভি এ আর রেফারি নিজেও ব্যাবহার করতে পারেন কিংবা ভি এ আর প্যানেল কোন সিদ্ধান্ত নিয়ে রেফারির দৃষ্টি আকর্ষন করতে চাইলে নিজেরাও মূল রেফারির সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

ভি এ আর এর প্রথম ব্যাবহার দেখা যায় ২০১৬ এর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারে। আন্তর্জাতিক ভাবে এর ব্যাবহার প্রথম শুরু হয় ২০১৭ এর ইংল্যান্ড বনাম জার্মানির এক প্রীতি ম্যাচে। ইতোমধ্যে অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপে এবং কনফেডারেশন কাপে এই প্রযুক্তির সুফল পাওয়া গেছে। এই প্রযুক্তি নিয়ে দ্য ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ডের (আইএফএবি) পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘ফুটবলকে আরও স্বচ্ছ ও ত্রুটিমুক্ত করবে এই প্রযুক্তি। যার ফলে বিশ্ব ফুটবলে নতুন দিক উন্মোচিত হবে।’

 

রিফাত হাসান

প্রকৌশলী

www.refathasan.com

https://www.facebook.com/refat.che.hasan

https://twitter.com/refat_che_hasan

Skype: refat.aiub_1

সর্বশেষ

নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আমজাদ হোসেন বাচ্চু বিজয়ী

নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আমজাদ হোসেন বাচ্চু (নৌকা) ২১,৭৬৮ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম কাইয়ূম (মোবাইল) ১৯,৫৬৪...

সরকার দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে শিক্ষাকে বহুমাত্রিক করতে কাজ করছে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তাঁর সরকার দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষাকে অগ্রাধিকার দিয়ে শিক্ষাকে বহুমাত্রিক করতে কাজ করছে। ‘সরকার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ‘বহুমাত্রিক’ করে...

রাজস্থলীতে থুইনুমং মারমা হত্যা মামলায় একজনকে আটক করলো পুলিশ

রাঙ্গামাটি জেলাতে রাজস্থলী উপজেলায় পার্বত্য চট্রগ্রাম জনসংহতি সমিতি ( জে এস এস) এর সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে রাজস্থলী উপজেলার তাইতং পাড়া এলাকার নিবাসী মং...

রাণীশংকৈলে ভিজিডি কার্ডের চুড়ান্ত তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার নন্দুয়ার ইউনিয়নে দুস্থ ও অসহায় মহিলাদের নাম না দিয়ে ভিজিডি কার্ডের চুড়ান্ত তালিকা তৈরিতে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে ২৮...