ব্রেকিং

x

মুক্তিযোদ্ধাদের অবসর সময় ৬০ বছরঃ আইন বৈধ ঘোষণা

সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ | ৭:৩০ পূর্বাহ্ণ


মুক্তিযোদ্ধাদের অবসর সময় ৬০ বছরঃ আইন বৈধ ঘোষণা
প্রতীকী ছবি

মুক্তিযোদ্ধাদের সরকারী চাকরিতে অবসরের বয়সসীমা ৫৯ বছর থেকে ৬০ বছর করে ২০১৩ সালের করা আইন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। রায়ে বলা হয়েছে সরকারী চাকরি থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের বয়সসীমা ৬০ বছরই হবে।

রবিবার সুপ্রীমকোর্টের ওয়েবসাইটে এ রায় প্রকাশিত হয়েছে। এদিকে সরকার আইন কর্মকর্তা নিয়োগে স্বাধীন কমিশন বা এ্যাটর্নি সার্ভিস কমিশন গঠনের নির্দেশনা কেন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। রবিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ এ আদেশ প্রদান করেছে। সরকারী চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৫৯ বছর থেকে ৬০ বছর করে ২০১৩ সালের করা আইন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। ২০১৮ সালের ১৮ নবেম্বর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপীল বিভাগ সরকারী চাকরিতে ৫৯ বছর থেকে ৬০ বছর করে ২০১৩ সালের করা আইন অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় বহাল রাখেন। রবিবার সুপ্রীমকোর্টের ওয়েবসাইটে এ রায় প্রকাশিত হয়েছে।

রায়ের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে, হাইকোর্ট জাতীয় সংসদকে আইন প্রণয়ন বা সংশোধন করতে বলতে পারে না।

এর আগে ২০১৮ সালের ১৮ নবেম্বর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপীল বিভাগ সরকারী চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৫৯ বছর থেকে ৬০ বছর করে ২০১৩ সালে করা আইন অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় বাতিল করেন। ২০১৮ সালের ১১ এপ্রিল সরকারী চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৫৯ বছর থেকে ৬০ বছর করে ২০১৩ সালে করা আইন অবৈধ ও বাতিল ঘোষণা করে হাইকোর্ট। আদালতে বলে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৬১ বছর করা উচিত ছিল। কিন্তু সেটা না করা বৈষম্যমূলক হয়েছে। এ কারণে সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের ৬১ বছর পর্যন্ত সকল সুবিধা দেবে বলে মনে করি। হাইকোর্টের বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি এ কে এম সাহিদুল হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন। রায়ের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে, হাইকোর্ট জাতীয় সংসদকে আইন প্রণয়ন বা সংশোধন করতে বলতে পারে না। এর আগে ২০১৮ সালের ১৮ নবেম্বর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপীল বিভাগ সরকারী চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৫৯ বছর থেকে ৬০ বছর করে ২০১৩ সালে করা আইন অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় বাতিল করেন। ২০১৮ সালের ১১ এপ্রিল সরকারী চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৫৯ বছর থেকে ৬০ বছর করে ২০১৩ সালে করা আইন অবৈধ ও বাতিল ঘোষণা করে হাইকোর্ট। আদালতে বলে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৬১ বছর করা উচিত ছিল। কিন্তু সেটা না করা বৈষম্যমূলক হয়েছে। এ কারণে সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের ৬১ বছর পর্যন্ত সকল সুবিধা দেবে বলে মনে করি। হাইকোর্টের বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি এ কে এম সাহিদুল হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন।



বাংলাদেশ সময়: ৭:৩০ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

যোগাযোগ২৪.কম |

Development by: webnewsdesign.com