ব্রেকিং

x

সরকার বিএনপিকে দাঁড়াতে দিচ্ছে না: রিজভী

শনিবার, ০২ নভেম্বর ২০১৯ | ৫:৫৯ অপরাহ্ণ


সরকার বিএনপিকে দাঁড়াতে দিচ্ছে না: রিজভী
বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ছবি: সংগৃহীত

পুলিশের অনুমতি না পেয়ে ঢাকায় দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন করেছে নারায়নগঞ্জ জেলা তাঁতী দল। সম্মেলনে ৫ সদস্যের নতুন কমিটির নামও ঘোষণা করা হয়। শুক্রবার দুপুরে নয়া পল্টনে মওলানা ভাসানী মিলনায়তনে এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

এ সময় সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আপনারা জানেন, নারায়ণগঞ্জের বিএনপি, তাঁতী দলসহ কেউ একটু দাঁড়ানোর স্কোপ পর্যন্ত পায় না। আজকে নারায়নগঞ্জ তাঁতী দলের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন ঢাকায় করতে হচ্ছে। কারণ এখানে (নারায়নগঞ্জ) পুলিশ আওয়ামী লীগের চাইতে বেশি আওয়ামী লীগ হয়ে পড়েছে। এতো বেশি আওয়ামী লীগ হয়ে পড়েছে নারায়নগঞ্জে জেলার পুলিশ যে, শেখ হাসিনা যেটা চান- তিনি চান তো হচ্ছে, বিএনপি থাকবে না, বিএনপি নিশ্চিহ্ন থাকবে, বিএনপিকে কোনো কর্মসূচি করতে দেয়া যাবে না- সেই কাজটি আন্তরিকতার সাথে করছেন নারায়নগঞ্জের এসপি এবং পুলিশ প্রশাসন।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদের ওপর পুলিশি নির্যাতনের কথা তুলে ধরে রিজভী বলেন, একজন অধ্যাপক হচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ ডিগ্রি নেয়ার পর শিক্ষকতার মতো মহান পেশায় কাজ করেন। সেই পেশায় মামুন মাহমুদ গেছেন। বিএনপির যেদিন জেলায় কর্মসূচি থাকে সেদিন পুলিশের কনস্টেবল পর্যায়ের সদস্য দিয়ে মামুন মাহমুদের বুকের জামা ধরে টানা হেঁচড়া করা হয়। অর্থা দেশের শিক্ষিত মানুষ, স্বজ্জন মানুষ, ভদ্রলোক, শিক্ষক –এদের কোনো মান সন্মান নেই। এই দেশে এখন ক্যাসিনোবাজদের মান-সন্মান আছে, জুয়াড়িদের মান-সন্মান আছে কিন্তু অধ্যাপক মামুনদের মতো মানুষ যারা সৎ পেশায় থেকে যারা রাজনীতি করে তাদেরকে পুলিশের কনস্টেবল দিয়ে টানা হেঁচড়া করানো হয়।

খালেদা জিয়াকে সরকার প্রতিহিংসায় মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে আটকিয়ে রাখার কঠোর সমালোচনা করেন রিজভী। জেলা তাঁতী দলের হাজী মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে বিএনপির তাঁতী বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন ইসলাম খান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, তাঁতী দলের কেন্দ্রীয় আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ, নারায়নগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, মতস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আবদুর রহিম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

দ্বি-বার্ষিকী সম্মেলনে জেলার নতুন নির্বাচিত কমিটির নাম ঘোষণা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব। সভাপতি হয়েছেন এমএআর শুক্কুর মাহমুদ এবং সাধারণ সম্পাদক মাসুদ পারভেজ রুবেল। অন্যান্যরা হলেন, ইসমাইল শিকদার সিনিয়র সহসভাপতি, শফিকুল ইসলাম সহসভাপতি ও হামিদ উল্লাহ মোল্লা সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।



বাংলাদেশ সময়: ৫:৫৯ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০২ নভেম্বর ২০১৯

যোগাযোগ২৪.কম |

৪৯ বছর পরও স্বাধীন বাংলাদেশ পাইনি: ফখরুল
নরসিংদীতে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ আলহাজ্ব এম.এ হান্নান স্যার ইন্তেকাল করেন

Development by: webnewsdesign.com