চলতি বছর ৭১ বিলিয়ন ডলার খুইয়েছেন মার্ক জাকারবার্গ

মার্ক জাকারবার্গ

ভাগ্যের নির্মম পরিহাসের শিকার হয়েছেন মেটার প্রধান নির্বাহী (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ। চলতি বছর তিনি সম্পদ হারিয়েছেন ৭১ বিলিয়ন ডলার, যা বিশ্বের ১২০ দেশের জিডিপির থেকেও বেশি।
ব্লুমবার্গের বরাতে রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম আরটি এ তথ্য জানিয়েছে।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নার্স ইনডেক্স অনুসারে, বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় জাকারবার্গ বর্তমানে ২০তম অবস্থানে রয়েছেন। ২০১৪ সালের পর তিনি কখনো তালিকার এত নিচে নামেননি। এ প্রতিবেদনটি লেখার সময় অবধি তার সম্পদের পরিমাণ ৫৪ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার।

চলতি বছর এ পর্যন্ত ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ৭১ বিলিয়ন ডলার অর্থ খুইয়েছেন। ব্লুমবার্গের তালিকা অনুসারে এটি সবচেয়ে বড় পতন। এ সময়ে বিশ্বের আর কোনো ধনী ব্যক্তি এত বেশি পরিমাণে সম্পদ হারাননি। জিডিপির পরিপ্রেক্ষিতে যা ১২০ দেশের জিডিপির থেকেও বেশি।

এর আগে গেল সোমবারই (১৯ সেপ্টেম্বর) তার মোট সম্পদের পরিমাণ ছিল ৫৫ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার। দুই বছরেরও কম সময়ের আগে এ ধনকুবেরের সম্পদের মূল্য ছিল ১০৬ বিলিয়ন ডলার। সে সময় তিনি জেফ বেজোস ও বিল গেটসের পর ব্লুমবার্গের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে ছিলেন।

২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে ৩৪ বছর বয়সী এ ধনকুবেরের মোট সম্পদ ১৪২ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছিল। কিন্তু তা ক্ষণিক সময়ের জন্য স্থায়ী ছিল। মূলত ফেসবুকের নাম পরিবর্তন করে মেটাভার্স করার পর তার সম্পদ ধাপে ধাপে কমতে থাকে।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানায়, সে মাসে তাদের ব্যবহারকারীর সংখ্যায় কোনো প্রবৃদ্ধি হয়নি। যার ফলে প্রতিষ্ঠানটির স্টক মূল্যের রেকর্ড পতন ঘটে। এতে জাকারবার্গ ৩১ বিলিয়ন ডলার খুইয়ে ফেলেন। এদিকে ইনস্টাগ্রামের রিল ফিচারগুলোয় প্রত্যাশার তুলনায় কম বিজ্ঞাপন আয় হয়।

নিডহামের সিনিয়র ইন্টারনেট বিশ্লেষক লরা মার্টিনের মতে, কোম্পানির মেটাভার্সে বিনিয়োগের কারণে মেটার স্টক মূল্যও কমে আসছে।

জাকারবার্গের প্রায় সব সম্পদ মেটার স্টকে বাঁধা। কোম্পানিটির তথ্যমতে, জাকারবার্গের কাছে ৩৫০ মিলিয়নেরও বেশি শেয়ার রয়েছে। মঙ্গলবারের (২০ সেপ্টেম্বর) লেনদেন শেষে কোম্পানিটির স্টক মূল্য ১ দশমিক ৩ শতাংশ কমে ১৪৬ দশমিক শূন্য ৯ ডলারে দাঁড়িয়েছে।সূত্রঃ সময়টিভি। সম্পাদনা ম\হ। বৈ ০৯২২\১০ 


 

Related Articles