হাফ পাসে 'বীরকন্যা প্রীতিলতা'

প্রদীপ ঘোষ পরিচালিত ছবি 'বীরকন্য প্রীতিলতা' ২৫ নভেম্বর তিনটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। সিনেমাটি শিক্ষার্থীদের হাফ পাসে দেখানোর কথা রয়েছে।

রাজধানীর আধুনিক প্রেক্ষাগৃহ ব্লকবাস্টার সিনেমাস ও চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে টিকিটের অর্ধেক দামে বীরকন্য প্রীতিলতা সিনেমাটি দেখতে পাবেন শিক্ষার্থীরা। সিনেমাটি প্রদর্শিত হবে রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সেও। তবে সেখানে শিক্ষার্থীরা অর্ধেক দামের টিকিট পাবেন কি না তা এখনো নিশ্চিত না বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন সিনেমার পরিচালক প্রদীপ ঘোষ। রোববার (২০ নভেম্বর) সকালে জাতীয় জাদুঘরের বেগম সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে পরিচালক এসব তথ্য জানান।  

শিক্ষার্থীরা কীভাবে হাফ পাসে সিনেমাটি দেখবেন, সে সম্পর্কে জানতে চাইলে পরিচালক বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তারা হাফ পাসের কুপন দিয়ে এসেছেন। যেব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগ্রহী, তাদের কাছেও তারা কুপন পৌঁছে দিতে প্রস্তুত। প্রদীপ ঘোষ আরো বলেন, বাণিজ্য করার জন্য তিনি সিনেমা বানাননি। তবে তাদের চেষ্টা থাকবে যেন বাণিজ্য হয়। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে- প্রেক্ষাগৃহে চলার পর বিশ্বিবদ্যালয় যেন নিজ উদ্যোগে সিনেমাটি দেখায়।

নির্মাতার কাছে বীরকন্যা প্রীতিলতা শুধু সিনেমা নয়, এটি একটি আন্দোলন। তিনি জানান, সিনেমাটি করতে কত টাকা ঋণ হয়েছে, কবে শোধ হবে তা তিনি জানেন না।

শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস করার মাধ্যমে প্রেক্ষাগৃহ অর্থাৎ সিনেপ্লেক্স থেকে যে টাকা ছবি নির্মাতারা পেতেন তা তারা ছেড়ে দিচ্ছেন। সিনেমা হলে প্রদর্শনের পর পরিচালক নিজ উদ্যোগে সিনেমাটি বিভিন্ন যায়গায় দেখাবেন বলে জানান। ভালো প্রস্তাব থাকলে এবং সবাই যেন সিনেমাটি দেখতে পান সেজন্য ওটিটিতেও দেয়ার ইচ্ছা আছে তার।

সংবাদ সম্মেলনে সিনেমার ট্রেলার প্রদর্শন করা হয়। এর আগে সিনেমাটির টিজার ও একটি গান প্রকাশ পেয়েছে। সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা অমিত রঞ্জন দে, কামরুজ্জামান তপু এবং কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন।

প্রীতিলতা ছিলেন ব্রিটিশবিরোধী স্বাধীনতা সংগ্রামী। মাস্টারদা সূর্যসেনের নেতৃত্বে চট্টগ্রামের বিপ্লবে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। ক্রেইগ হত্যা মামলায় আরেক বিপ্লবী রামকৃষ্ণ বিশ্বাস আলীপুর জেলে আটক ছিলেন। জেলেই তার সঙ্গে প্রীতিলতা দেখা করেছিলেন ৪০ বার। সূর্যসেনের নির্দেশ ছিল একজন বিপ্লবী আরেকজন বিপ্লবীর সঙ্গে দেখা করতে পারবে না। কিন্তু প্রীতিলতা সেই নির্দেশ অমান্য করেছিলেন।

হয়তো রামকৃষ্ণকে ভালোবাসতেন প্রীতিলতা। চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ইউরোপিয়ান ক্লাব আক্রমণের পর প্রীতিলতা বিষপান করে জীবন উৎসর্গ করেন। তার পোশাকের পকেটে পাওয়া যায় রামকৃষ্ণ বিশ্বাসের ছবি। এ থেকে কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের বিশ্বাস দৃঢ় হয়। আর সেই বিশ্বাস থেকে প্রীতিলতার মনে গোপন করে রাখা ভালোবাসা নিয়ে সেলিনা হোসেন লিখেছেন ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ উপন্যাস।

উপন্যাসটি অবলম্বন করে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন প্রদীপ ঘোষ। সিনেমায় প্রীতিলতার চরিত্রে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। বিপ্লবী রামকৃষ্ণের চরিত্রে অভিনয় করেছেন মনোজ প্রামাণিক।সূত্রঃ সময়টিভি। সম্পাদনা ম\হ। বৈ ১১২১\০৫ 

Related Articles