যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লোরিডার শক্তিশালী হারিকেন ‘ইয়ানের’ আঘাত

ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে শক্তিশালী হারিকেন ইয়ান আঘাত হেনেছে। প্রচণ্ড বাতাস এবং মুষলধারে বৃষ্টিপাতের ফলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও বন্যার আশঙ্কা রয়েছে।

মার্কিন ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) জানায়, স্থানীয় সময় বুধবার বিকেল ৩টা ৫ মিনিটে ‘চরম বিপজ্জনক’ হারিকেনটি ফোর্ট মায়ার্স শহরের পশ্চিমে কায়ো কস্তায় আছড়ে পড়ে।

টেলিভিশন ফুটেজে দেখা গেছে, সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে এবং গাড়িগুলো দূরে ভেসে যাচ্ছে। হারিকেনটি ফোর্ট মায়ার্সের দক্ষিণে উপকূলীয় শহর নেপলসকে আঘাত করেছে৷

এনএইচসি জানায়, চার মাত্রার হারিকেন ইয়ান যখন আঘাত হানে, তখন বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৫০ মাইল বা ২৪০ কিলোমিটার। ইতোমধ্যে ফ্লোরিডা উপদ্বীপে বিপর্যয়কর ঝড় ও বন্যার সৃষ্টি করেছে।

ইয়ান ফ্লোরিড জুড়ে কয়েক মিলিয়ন মানুষকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। জর্জিয়া এবং দক্ষিণ ক্যারোলিনার দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলগুলোতে ইতোমধ্যে প্রথম দিকের হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে।

ইউএস বর্ডার পেট্রল জানায়, তাদের নৌকাডুবির পর ২০ জন অভিবাসী নিখোঁজ হয়েছে। ফ্লোরিডা উপকূলে সাঁতার কেটে বেঁচে যান চার কিউবান এবং তিনজনকে উপকূলরক্ষীরা সমুদ্র থেকে জীবিত উদ্ধার করেছে।

ফোর্ট মায়ার্সের উত্তরে পুন্তা গোর্দায় প্রবল বৃষ্টি হচ্ছিল এবং রাস্তাগুলো খালি হয়ে গিয়েছিল। কারণ প্রচণ্ড বাতাসে পাম গাছগুলো ভেঙে যায় এবং বিদ্যুতের খুঁটিগুলো কেঁপে ওঠে।

ফ্লোরিডা কাউন্টিতে প্রায় আড়াই মিলিয়ন মানুষকে সরে যেতে বলা হয়েছিল। কয়েক ডজন আশ্রয়কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে এবং অন্যদের স্বেচ্ছায় সরিয়ে নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

যারা নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্রে যাননি তাদের উদ্দেশে কর্তৃপক্ষ জোর দিয়ে বলছে, ঝড় থেকে পালাতে অনেক দেরি হয়ে গেছে এবং বাসিন্দাদের বাড়ির ভেতরে থাকা উচিত। সূত্রঃ এএফপি। সম্পাদনা না/রি। স ০৯২৯/০২

Related Articles