যুদ্ধ সাধারণ, যুদ্ধ অসাধারণ

যুদ্ধ সাধারণ, যুদ্ধ অসাধারণ

লেখকঃ তানভীর হোসেন

রাশিয়া- ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে এদেশের জনসাধারণ খুব একটা আগ্রহী নয়।  এই অনাগ্রহের একটা বড় কারণ ধর্মীয় সংঘাতের অনুপুস্থিতি। এই প্রথম বৈশ্বিক কোন যুদ্ধে বাঙালি মুসলমানরা জিহাদী জোশের অভাবে পড়েছে ! দেশীয় বামদের সংকট আরো গভীর! দেশের মোল্লারা যেমন সৌদি ক্রাউন প্রিন্স সালমানের এর বর্ণিল জীবন চেপে যায়, তেমনি বামেরা পুতিন - শি জিনপিং এর  বিরুদ্ধে হাই না তুলেই ঘুমাতে যায়। মূলধারার রাজনীতিবিদরা যা একটু আলোচনা করছেন, তা মূলত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভবিষ্যৎ নিয়ে, রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা বাংলাদেশকে কতটা সংকটে ফেলতে পারে সবাই তার হিসেব করছে।

একটা যুদ্ধ  এর আগে কখনো এক সাথে এতগুলা দেশকে খুশি করতে পারেনি, সে ক্ষেত্রে রাশিয়া- ইউক্রেন যুদ্ধ খুব অসাধারণ ও বিরল।  চীন খুশি কারণ এতে করে তাইওয়ানকে আরো চেপে ধরার একটা রাস্তা পাওয়া গেলো। ভারত খুশি কাশ্মীর এ ভারতীয় আগ্রাসণ হালাল হয়ে গেলো, একই কারণে পাকিস্তানও খুশি, কাশ্মীর বা বেলুচিস্তান নড়তে চাইলে গলা চিপে ধরা যাবে। ইসরাইল খুশি একজন নতুন হিটলার পাওয়া গেলো,  বিশ্ববাসীর মাথা থেকে ফিলিস্তিনের ভূত তাড়ানো যাবে।

আমেরিকা ডবল খুশি, একদিকে ন্যাটো শক্তিশালী হবে, অস্ত্রের ব্যবসা বাড়বে, তার উপর নিষেধাজ্ঞার ব্যবসা, লাভের উপর লাভ ! ইউরোপীয় ইউনিয়ন খুশি, রাশিয়াকে চাপে রেখে জ্বালানীর বাজারে নিয়ন্ত্রণ নেয়া যাবে, তার উপর  ব্ল্যাক সি কব্জা করা যাবে। পুতিন নিজেও খুশি নাতিন এর সময় পর্যন্ত ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে ! ইউক্রেনও খুশি ন্যাটোর সাথে গোপন প্রেমটা শেষমেশ বিয়েতে গড়াবে মনে হচ্ছে !

যুদ্ধ লাগলে যে ব্যবসাটা চাঙ্গা হয় তা হলো মিডিয়া ব্যবসা ! সেখানে এসেছে নতুন বোতলে পুরাতন মদ ! পেট্রোল বোমার ভয়ে আমাদের দেশে  মানুষ একটা সময় বাসে চড়তে ভয় করতো, ইউক্রেন এর পেট্রোল বোমার রেসিপি বিবিসি পর্যন্ত দেখায়। সিরিয়া- ফিলিস্তিন এ  হাজার হাজার শিশু মরলে দিলে কষ্ট লাগে না, আর ইউক্রেনের সোনালী চুল আর নীল চোখের শিশুদের জন্য মিডিয়ার কলিজা ফেটে যায়। ফিলিস্তিনের জনগণ অস্ত্র হাতে নিলে হয় সন্ত্রাসী, ইউক্রেন এ হয় ভলেন্টিয়ার! ইউরোপ যুদ্ধ বন্ধ করতে অস্ত্র সরবরাহ করছে, সেই অস্ত্রের মধ্যে শান্তি খুঁজে পাচ্ছে যুদ্ধানুরাগী মিডিয়া !

যুদ্ধ আসলেই একটা সাধারণ বিষয়, কারণ পৃথিবী কখনোই যুদ্ধবিহীন ছিল না।  মানুষ আসলে সুবোধের মুখোশ পরে থাকা যুদ্ধবাজ প্রাণী! যুদ্ধ আসলে সাদা- কালোর, যুদ্ধ পূর্ব -পশ্চিমের। তুমি আমি কেউই যুদ্ধের ঊর্ধ্বে নই, তবু তোমার সাথে আমার প্রেমটাই চাই। সম্পাদনা র/ভূঁ। ম ২০২২০৩০২-০১

Related Articles